বাজেট অনুযায়ী দেশে উৎপাদিত মোটরসাইকেলের দাম কমছে আবারো

প্রস্তাবিত জাতীয় বাজেটে মোটরসাইকেলের ক্ষেত্রে প্রণোদনা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি মোটরসাইকেল ও পার্টস উৎপাদনে কতিপয় পণ্যে শুল্ক সুবিধা যৌক্তিকীকরণের প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী আব্দুল মাল আবদুল মুহিত।

বৃহস্পতিবার (৭ জুন) জাতীয় সংসদে ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরের বাজে বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী এই প্রস্তাব করেন।

মুহিত বলেন, পরিবহন খাতের উদীয়মান একটি উপখাত হলো মোটরসাইকেল উৎপাদন। দেশে ইতোমধ্যেই ৩-৪টি প্রতিষ্ঠান স্থানীয়ভাবে মোটরসাইকেল উৎপাদন শুরু করেছে। একটি প্রতিষ্ঠান স্বল্প পরিসরে তাদের উৎপাদিত মোটরসাইকেল রপ্তানিও শুরু করেছে। মোটরসাইকেলের স্থানীয় উৎপাদন সম্প্রসারণের লক্ষ্যে এ খাতের জন্য শর্তসাপেক্ষে রেয়াতি সুবিধা প্রদান করে বিগত অর্থবছরে একটি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছিল। মোটরসাইকেল উৎপাদন খাতে প্রদত্ত প্রণোদনা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি মোটরসাইকেল ও এর পার্টস উৎপাদনে কতিপয় পণ্যে শুল্ক সুবিধা যৌক্তিকীকরণের প্রস্তাব করছি।

ঢাকার যানজট থেকে বাঁচতে মধ্যবিত্ত পরিবারের অনেকেই মোটরসাইকেল ব্যবহার করেন। দিন দিন এ সংখ্যা বাড়ছে সারাদেশে।

তবে বাইসাইকেলের ক্ষেত্রে সুখবর দেননি মুহিত।

তিনি বলেন, স্থানীয় বাইসাইকেল উৎপাদনকারী/সংযোজনকারী প্রতিষ্ঠান প্রতিরক্ষণের স্বার্থে ব্রেকস, স্যাডল ইত্যাদির আমদানি শুল্ক ২৫ শতাংশ বৃদ্ধির প্রস্তাব করছি।

 

সূত্রঃ বাংলা নিউজ ২৪

মন্তব্য

About The Author

Related Posts

error: Content is protected !!