Honda CB Hornet 160R এর দাম কমাল বাংলাদেশ হোন্ডা প্রাইভেট লিমিটেড

Tourino Tyres

নতুন বছরে মোটামুটি ভাল একটা চমক দিল হোন্ডা তা বলতেই হবে। ২ লাখ টাকা বাজেটের মধ্যে অন্যতম সেরা বাইক তাদের Honda CB Hornet 160R, গত বছরে যার বেশ চাহিদা বাজারে দেখা গিয়েছে। আগে এর দাম ছিল ১৯৯,৮০০ টাকা যা থেকে দশ কমিয়ে বর্তমান মূল্য ১৮৯,৮০০ টাকা মাত্র। জানুয়ারী মাসের ২ তারিখ থেকে দেশের যে কোন হোন্ডার ডিলার পয়েন্ট থেকে এই দামে বাইকটি ক্রয় করা যাবে।

বাজারে এর প্রতিদ্বন্দ্বী বাইকগুলো হচ্ছে Bajaj Pulsar 160 NS (199,500/-), TVS Apache RTR 160 4V (204,900/-) এবং Suzuki Gixxer (209,950/-)।  প্রতিদ্বন্দ্বী প্রতিটি মোটরসাইকেলের তুলনায় হর্নেটের দাম কিছুটা কম হওয়ায় বাজারে এর চাহিদা আরো বাড়বে বলে আশা করা যায়।

বাংলাদেশে সিসি লিমিট যখন বাড়িয়ে ১৬৫ সিসি করা হয় ঠিক তখন থেকেই মোটরসাইকেলিস্টদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু ছিল হোন্ডার এই বাইকটি। বাজারে লঞ্চ হওয়ার সাথে সাথে বুকিং নিয়ে যেন কূল পাচ্ছিল না ডিলার শপগুলো।

Honda CB Hornet 160R এর স্ট্যান্ডার্ড ভার্সনটি বাংলাদেশে লঞ্চ করে বাংলাদেশ হোন্ডা প্রাইভেট লিমিটেড যাতে রয়েছে সিঙ্গেল ডিস্ক ব্রেক। এখন বাইকারদের মাঝে প্রত্যাশা, কবে হোন্ডা বাংলাদেশে এই বাইকটির ডাবল ডিস্ক ব্রেক, CBS এবং ABS ভার্সন বাংলাদেশে লঞ্চ করে।

ইতোঃমধ্যে বাইকটি জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে এর অসাধারণ লুকস, স্পোর্টি সিটিং পজিশন এবং অসাধারন ব্রেকিংয়ের কারণে। তবে বিল্ট ইন কোয়ালিটি এবং রেয়ার সাসপেনশন নিয়ে অনেকের আপত্তি শোনা গেছে। যদিও কোন বাইকে সব কিছু মনের মত পাওয়া যায় না তবু আমরা চাইব হোন্ডা যাতে তাদের এই ত্রুটিগুলো রিকভার করে।

১৬২.৭১ সিসি’র কার্বুরেটর ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়েছে হর্নেটে যা ১৫.১ বিএইচপি ম্যাক্সিমাম পাওয়ার এবং ১৪.৭ এনএম টর্ক উৎপন্ন করতে পারে। হাই আরপিএমে কিছুটা ভাইব্রেশন পাওয়া গেলেও বাইকটির পাওয়ার ডেলিভারী অসাধারণ যা হিল রাইডের সময় দারুণ বোঝা যায়।

কিছুদিন আগে মুন্সিগঞ্জে নিজেদের উৎপাদনকেন্দ্র চালু করে হোন্ডা। আর তাই সকলের মাঝে প্রত্যাশা খুব শীঘ্রই হোন্ডা বাংলাদেশে তাদের বাইকগুলোর দাম কমিয়ে আনবে।

মন্তব্য

About The Author

Related Posts

error: Content is protected !!